সংবাদ শিরোনাম:

একনেকে ৩০ হাজার ২৩৫ কোটি টাকার ২৮টি প্রকল্প অনুমোদন

ডেস্ক রিপোর্ট : নেত্রকোনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে একটি নতুন বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের অনুমতি দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)। বিশ্ববিদ্যালয়টি স্থাপনের জন্য দুই হাজার ৬৩৭ কোটি টাকা ব্যয় ধরে একটি প্রকল্প নেওয়া হয়েছে। এ প্রকল্পসহ গতকাল বুধবার একনেক সভায় মোট ২৮টি প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এসব প্রকল্পে ব্যয় হবে প্রায় ৩০ হাজার ২৩৫ কোটি টাকা।
রাজধানীর এনইসি সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে একনেক সভা অনুষ্ঠিত হয়। গতকালের একনেক সভা ছিল বর্তমান সরকারের শেষ একনেক সভা—এমন ইঙ্গিত মিলেছে প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে।
জানা গেছে, সভায় প্রধানমন্ত্রী সবার উদ্দেশে বলেছেন, ‘আপনাদের নিরলস পরিশ্রমের ওপর ভর করে আমরা দেশের এত উন্নয়ন করতে পেরেছি। আবার দেখা হবে যদি ক্ষমতায় আসতে পারি।’
সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী সাংবাদিকদের জানান, একনেক সভায় মোট ২৮ প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়। এসব প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্যয় হবে ৩০ হাজার ২৩৪ কোটি ৬০ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে ব্যয় হবে ২৪ হাজার ৮৫৪ কোটি ৬৮ লাখ টাকা। বাস্তবায়নকারী সংস্থাগুলো নিজেদের তহবিল থেকে ব্যয় করবে ৫৩৯ কোটি ১৭ লাখ টাকা। অবশিষ্ট চার হাজার ৮৪০ কোটি ৭৫ লাখ টাকা প্রকল্প সহায়তা হিসেবে বিদেশি উৎস থেকে সংগ্রহ করা হবে।
সংবাদ ব্রিফিংয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, ২০১৭ সালে মন্ত্রিসভায় অনুমোদন দেওয়া শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়কে স্থায়ী রূপ দিতে প্রকল্পটি নেওয়া হয়েছে। গবেষণাধর্মী এ বিশ্ববিদ্যালয়ে মানবিক, বিজ্ঞান, তথ্য-প্রযুক্তি, সামাজিক বিজ্ঞান ও বাণিজ্যের বিষয়গুলো পড়ানো হবে। স্নাতক ও স্নাতকোত্তরসহ এমফিল ও পিএইচডি ডিগ্রি দেওয়া হবে এ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। ২০২১ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে এর কাজ শেষ করবে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন ও শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়, নেত্রকোনা কর্তৃপক্ষ।
নেত্রকোনা জেলা সদর থেকে পাঁচ কিলোমিটার দূরে প্রতিষ্ঠিত হবে বিশ্ববিদ্যালয়টি। এ লক্ষ্যে অধিগ্রহণ করা হবে ৫০০ একর জমি। নির্মাণ করা হবে ১০ তলা বিশিষ্ট তিনটি একাডেমিক ভবন, শিক্ষার্থীদের জন্য চারটি হল ও প্রশাসনিক ভবন। শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের জন্যও থাকবে আবাসনের ব্যবস্থা।
মন্ত্রী আরো জানান, নতুন এ বিশ্ববিদ্যালয়ে খেলাধুলার পর্যাপ্ত জায়গা রাখার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বৃষ্টির পানি সংরক্ষণে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে ব্যবস্থা রাখারও নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। হাওরাঞ্চলের এ বিশ্ববিদ্যালয়ে হাওরের অর্থনীতি ও উন্নয়ন নিয়ে গবেষণা করতে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন বলেও জানান পরিকল্পনামন্ত্রী।
এ ছাড়া একনেকে অনুমোদন পাওয়া সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর সম্প্রসারণ প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্যয় হবে দুই হাজার ৩০৯ কোটি ৭৯ লাখ টাকা। জয়িতা ফাউন্ডেশনের সক্ষমতা বির্নিমাণ প্রকল্পে ব্যয় হবে ২৬২ কোটি ৯৯ লাখ টাকা। তিন হাজার ৮০৮ কোটি ৫৯ লাখ টাকা ব্যয় ধরে চট্টগ্রাম মহানগরের পয়োনিষ্কাশন ব্যবস্থা স্থাপন প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। অনুমোদন পেয়েছে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনে কঠিন বর্জ্য সংগ্রহ এবং অপসারণ প্রকল্প। এক হাজার ২৫৬ কোটি ১৬ লাখ টাকা ব্যয় ধরে বহদ্দারহাট বাড়ইপাড়া থেকে কর্ণফুলী নদী পর্যন্ত খাল খনন প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। চা-বাগান কর্মীদের জন্য নিরাপদ সুপেয় পানি সরবরাহ ও স্যানিটেশন প্রকল্পে ব্যয় ধরা হয়েছে ৬২ কোটি ১৪ লাখ টাকা। ৭৪৬ কোটি ৭৮ লাখ টাকা ব্যয় ধরে উপজেলা ও ইউনিয়ন ভূমি অফিস নির্মাণ, ৬২৯ কোটি ৭৪ লাখ টাকা ব্যয়ে ১১টি আধুনিক ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশন স্থাপন, ৮৩ কোটি টাকা ব্যয়ে মাদারীপুরে সরকারি অফিসগুলোর জন্য বহুতল ভবন নির্মাণ প্রকল্প নেওয়া হয়েছে।
বিশ্বব্যাংকের সহায়তায় প্রাণিসম্পদ ও ডেইরি উন্নয়ন প্রকল্প নেওয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হবে চার হাজার ২৮০ কোটি ৩৬ লাখ টাকা। সারা দেশে ছোট নদী, খাল ও জলাশয় পুনঃখননে নেওয়া প্রকল্পে ব্যয় ধরা হয়েছে দুই হাজার ২৭৯ কোটি ৫৫ লাখ টাকা। চট্টগ্রাম-খুলনা-রাজশাহী এবং রংপুর বিভাগে একটি করে ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ স্থাপন প্রকল্পে এক হাজার ২২২ কোটি ৩৯ লাখ টাকা, র‌্যাব ফোর্সের আভিযানিক সক্ষমতা বৃদ্ধিকরণ প্রকল্পে এক হাজার ৩৩ কোটি ৯৮ লাখ টাকা, ডিপিডিসির আওতাধীন এলাকায় বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থা উন্নয়নে এক হাজার ৯৫৭ কোটি ৩৪ লাখ টাকা, সোনাগাজী ৫০ মেগাওয়াট সৌরবিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পে ৭৪৬ কোটি ৭৬ লাখ টাকা ব্যয় ধরা হয়েছে।
এ ছাড়া বীজ প্রত্যয়ন কার্যক্রম জোরদার করা, চট্টগ্রামে ৩৬ পরিত্যক্ত বাড়িতে সরকারি চাকুরেদের আবাসিক ফ্ল্যাট, আনুষঙ্গিক সুবিধাসহ বিশেষ ধরনের পন্টুন নির্মাণ, বৃহত্তর নোয়াখালীর পল্লী অবকাঠামো উন্নয়ন, বৃহত্তর রাজশাহীর গ্রামীণ অবকাঠামো উন্নয়ন, রোহিঙ্গাদের জন্য বহুমুখী সেবা প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।
পরিকল্পনামন্ত্রীর অনুমোদন দেওয়া ১৫টি প্রকল্প অবগতির জন্য গতকাল উপস্থাপন করা হয়।

Comments

comments

নিউজটি 37 বার পড়া হয়েছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশক : আওরঙ্গজেব কামাল
সম্পাদক : শেখ আঃ সালাম
নির্বাহী সম্পাদক : জি এম হেদায়েত আলী টুকু
যুগ্ন-সম্পাদক : মুন্সী রেজাউল করিম মহব্বত
উপদেষ্টা : জি এম ইমদাদ

ঢাকা অফিস : জীবন বীমা টাওয়ার,১০ দিলকুশা বানিজ্যিক (১০ তলা) এলাকা,ঢাকা-১০০০
অফিস : ফকিরবাড়ীর মোড়,কপিলমুনি বাজার,পাইকগাছা,খুলনা।
মোবাইলঃ ০১৭১৬১৮৪৪১১,০১৭১৩৬৩৪০৫৩

E-mail: dainikkapotakho@gmail.com